সুস্বাস্থ্য.কম

সুস্থ্য দেহ ও সতেজ মনের জন্য...

  • Increase font size
  • Default font size
  • Decrease font size
কিডনীর বিভিন্ন রোগ, লক্ষন, চিকিৎসা পরামর্শ

কিডনি সুস্থ্য রাখার ৭ টি উপায়

E-mail Print

কিডনি ফেইলুর বা রেনাল ফেইলুর শরীরের এক নীরব ঘাতক, প্রায় প্রতিটি পরিবারেরই কেউ না কেউ এই ভয়াবহ রোগে আক্রান্ত। তাই আমরা সকলেই কমবেশী জানি এ রোগের ভোগান্তি কতটা নির্মম; কিন্ত আমরা কি জানি কিছু সাবধানতা অবলম্বন করলে সহজেই এই রোগ এড়িয়ে যাওয়া সম্ভব। আসুন জেনে নেই কিভাবে সহজেই আপনার কিডনিকে সুস্থ্য রাখা সম্ভব,

১। কর্মঠ থাকুনঃ নিয়মিত হাটা,দৌড়ানো,স্লাইকিং করা বা সাতার কাটার মতো হাল্কা ব্যায়াম করে আপনার শরীরকে কর্মঠ ও সতেজ রাখুন। কর্মঠ ও সতেজ শরীরে অন্যান্য যেকোন রোগ হবার মতো কিডনি রোগ হবার ঝুকিও খুব কম থাকে।

বিস্তারিত...
 

রেনাল ফেইলুর (Renal failure)

E-mail Print

বৃক্ক বা কিডনির (kidney) কাজ মূলত চারটি

মূত্র তৈরী তার মাধ্যমে শরীরের অপ্রয়োজনীয় বর্জ পদার্থ বের করে দেয়া,

শরীরের অতিরিক্ত পানি মৌল বের করে দিয়ে এদের ভারসাম্য রক্ষা করা,

জরুরী কিছু হরমোন তৈরী করা এবং

ভিটামিন ডি ক্ষুদ্র কিছু আমিষের বিপাক ঘটানো কিডনি যখন প্রথম কাজ দুটি করতে ব্যর্থ হয় তখন রেনাল ফেইলুর হয়েছে বলে ধরে নেয়া হয়

বিস্তারিত...
 

একিউট গ্লোমেরুলো নেফ্রাইটিস - এ জি এন (AGN)

E-mail Print

অনেক সময় হাতে পায়ে পাঁচড়া বা ঘা হওয়া বাচ্চাদের দেখা যায় হঠাৎ করে নাক মুখ ফুলে উঠে ভীষন অসুস্থ হয়ে যেতে। কিডনির প্রদাহ জনিত এমন একটি রোগের নামই একিউট গ্লোমেরুলো নেফ্রাইটিস (AGN)। সাধারনত দরিদ্র ঘরের বাচ্চারাই এই রোগে বেশী অসুস্থ হয়ে থাকে তবে অবস্থাপন্ন পরিবারে এমন যে হয়না তা কিন্ত নয়। এতটুকু পড়ে কারো মনে হতে পারে এই রোগ বুঝি শুধু শিশুদেরই হয়।তা কিন্তু নয় -বেশীর ভাগ রোগীর বয়স ৫ থেকে ১০ বছরের মধ্যে হলেও বড়দেরও এমন রোগ হতে পারে।

বিস্তারিত...
 

এনুরিয়া (Anuria)

E-mail Print

এনুরিয়া বলতে বোঝায় ২৪ ঘন্টায় একদম প্রসাব বা মুত্র না হওয়া। এটা ভয়াবহ একটি পরিস্থিতি। এমনটি হলে প্রথমেই নিশ্চিত হয়ে নিতে হবে সত্যিই কি গত ২৪ ঘন্টা ধরে তৈরী প্রসাব হয়নি নাকি প্রসাব মুত্রথলি বা ইউরিনারি ব্লাডারে জমে আছে। বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই এমন দেখা যায় যে রোগীর প্রসাব তৈরী হয়েছে কিন্ত বের হতে পারছেনা, এমন পরিস্থিতি কে এনুরিয়া বলা হয়না, বলা হয় ইউরিনারি রিটেনশন। মুত্র নালি দিয়ে ক্যাথেটার পরিয়ে দিলেই রিটেনশন দূর হয়ে যায়, কিন্ত এনুরিয়া হলে ক্যাথেটার পরালেও কোনো ইউরিন বা মুত্র আসেনা।

বিস্তারিত...
 

প্রসাবে রক্ত যাওয়া বা হেমাচুরিয়া (Hematuria)

E-mail Print

হেমাচুরিয়া বলতে প্রসাবে রক্ত যাওয়াকে বোঝায়। এই রক্ত যাবার কারনে প্রসাবের রঙ ঘোলাটে দেখা যায় এবং কখনো কখনো তা গোলাপি বর্ণ ধারন করে। একজন সুস্থ্য মানুষের প্রসাবের সাথে কোনো রক্ত বা রক্ত কনিকা যাবেনা এটাই স্বাভাবিক। অবশ্য পরিনত সুস্থ্য মেয়ে / মহিলাদের প্রসাবে শুধুমাত্র মাসিক ঋতু চক্রের সময় কিছু রক্ত কণিকা পাওয়া যাওয়াটা স্বাভাবিক বলে ধরে নেয়া হয়।

বিস্তারিত...
 

নেফ্রোটিক সিন্ড্রম (Nephrotic Syndrome)

E-mail Print

কোনো রোগকে ঘিরে যখন অনেকগুলো উপসর্গ এক সাথে বিরাজ করে তাকে সিনড্রম বলা হয়। নেফ্রোটিক সিনড্রম কিডনির এমনই অনেক গুলো উপসর্গের সমন্বয় যা অনেক গুলো রোগের কারনে হতে পারে, কিন্ত উপসর্গগুলো সব সময় একসাথে থাকে আর এর চিকিৎসা পদ্ধতিও একই। তা হলে প্রশ্ন আসতেই পারে নেফ্রটিক সিনড্রম হলে কি হয়। আসলে কিডনির যে যে রোগে প্রসাবে প্রচুর প্রোটিন যায়, রক্তে প্রোটিনের মাত্রা অনেক কমে যায় আর কোলেস্টেরলের মাত্রা অনেক বেড়ে যায় এবং সেই সাথে সমস্ত শরীরে পানি জমে ফুলে যায় তাকে এক কথায় নেফ্রটিক সিন্ড্রম বলে।

বিস্তারিত...
 



সম্পর্কিত আরও লেখা

সুস্বাস্থ্য সুপারিশ করুন

এই সাইটের সকল তথ্য শুধুমাত্র চিকিৎসা সংক্রান্ত জ্ঞানার্জন ও সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে প্রকাশিত যা কোন অবস্থাতেই চিকিৎসকের বিকল্প নয়রোগ নির্নয় ও তার চিকিৎসার জন্য সংশ্লিস্ট চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়া বাঞ্ছনীয়